পাঁচ টেস্ট পর অস্ট্রেলিয়ার স্বস্তির জয়

স্কোর

দক্ষিণ আফ্রিকা ২৫৯/৯ ডিক্লে, ২৫০

অস্ট্রেলিয়া ৩৮৩, ১২৭/৩ ( ওয়ার্নার ৪৭, অ্যাবট ১/২৬)

ফলাফল- অস্ট্রেলিয়া ৭ উইকেটে জয়ী

ম্যান অফ দা ম্যাচ- উসমান খাজা

ম্যান অফ দা সিরিজ- ভার্নন ফিল্যান্ডার


ঠিক দুই বছর আগে আজকের দিনে সবাইকে কাঁদিয়ে পরপারে চলে গিয়েছিলেন অজি ওপেনার ফিলিপ হিউজ। তাঁর স্মরণে দুই দলের ক্রিকেটাররাই বাহুতে হিউজের নাম লেখা কালো কাপড় বেধে নেমেছিলেন। আজকের দিনে বন্ধুর জন্যই হয়তো জয়টা পেতে চেয়েছিলেন স্মিথ। দল তাঁকে হতাশ করেনি। টানা পাঁচ টেস্ট হারার পর স্বস্তির জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

 

দিনের পঞ্চম ওভারেই ডি কককে ফেরান জ্যাকসন বার্ড। কুক-ফিল্যান্ডার জুটির কল্যাণে লিড ১০০ পেরোয়। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন স্টিভেন কুক। গত ১০ ইনিংসে ৪ বার ২৫ রানের ওপরে করেছেন কুক, যার ২ টিকেই সেঞ্চুরি পর্যন্ত নিয়ে গিয়েছেন। এরপর দ্রুতই দক্ষিণ আফ্রিকার লেজ গুটিয়ে ফেলেন স্টার্ক, হ্যাজলউড।


১২৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে ব্যাটিং করতে থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার। মনে হচ্ছিল ওয়ার্নার-রেনশ’ জুটিই খেলা শেষ করে দেবে। কিন্তু প্রথম ইনিংসের রান আউটের ভূত আবারো ফিরে এলো। সেবার খাজার সাথে ভুল বোঝাবুঝিতে ফিরতে হয়েছিল স্মিথকে। এবার প্রায় একইভাবে রানআউট হয়েছেন ওয়ার্নার। এই সিরিজে ২ বার রানআউট হলেন, যেখানে আগের ১০০ ইনিংসে মাত্র একবার এভাবে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন! একই ওভারে আগের ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান উসমান খাজাকে শূন্য রানেই ফেরান শামসি। আম্পায়ার হাত না তুললেও রিভিউতে দেখা যায় বল ষ্ট্যাম্পে লাগছে।

 

তখনো ৬৩ রান বাকি। অজি ড্রেসিংরুমে খানিকটা অস্বস্তি স্পষ্টই চোখে পড়ছিল। আবার কি বিপর্যয় অপেক্ষা করছে? তেমনটা হতে দেননি রেনশ’-স্মিথ। দলকে জয়ের খুব কাছে এনে অ্যাবটের বলে ফেরেন স্মিথ। জয়সূচক রানটি আসে নবাগত হ্যান্ডসকম্বের ব্যাট থেকে। টেস্ট ক্রিকেটে মাত্র দ্বিতীয়বার দুই নবাগত জয় এনে দিলেন কোনো দলকে। 

টেস্টটা অস্ট্রেলিয়ার জন্য রীতিমতো অগ্নিপরীক্ষা ছিল। একের পর এক হারে বিপর্যস্ত দলে নিয়ে আসা হয়েছিল ৩ নবাগতকে। স্মিথের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেয়ার গুঞ্জনও উঠেছিল, সাথে আশঙ্কা ছিল টানা তৃতীয় সিরিজে ধবলধোলাই হওয়ার লজ্জা। তবে নবাগত রেনশ’, হ্যান্ডসকম্ব দুজনই দারুণ খেলেছেন, ফিল্ডিংয়েও দুজনের সাফল্যটা চোখে পড়ার মতো। প্রথম ইনিংসে উসমান খাজার সেই অসাধারণ ইনিংস অনেকটাই চালকের আসনে বসিয়েছিল অস্ট্রেলিয়াকে। দ্বিতীয় ইনিংসে শূন্য রানে ফিরলেও ম্যাচ সেরা হয়েছেন এই খাজাই। সিরিজে দারুণ বোলিংয়ের সুবাদে ম্যান অফ দা সিরিজ হয়েছেন ভার্নন ফিল্যান্ডার। ম্যাচ হারলেও ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে ফাফ ডু প্লেসির দল।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s