৫৯৫ করেও হারবে বাংলাদেশ?

শেষ বিকেলটাতে হঠাৎ এলোমেলো হয়ে গেল বাংলাদেশ। বিনা উইকেটে ৫০ থেকে ১৬ রানের মধ্যে ৩ উইকেট নেই। এর মধ্যে ইমরুল কায়েস যেভাবে চোট নিয়ে বের হয়ে গেলেন স্ট্রেচারে শুয়ে, তিনিও ব্যাটিং করতে পারবেন কি না নিশ্চিত নয়। মুশফিকুর রহিমের আঙুলে চোট। সমর্থকদের মনে ভয় থাকাই স্বাভাবিক, চার দিন ধরে টেস্টটায় এত দাপট দেখিয়েও কি ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত হারতে হবে!

অনেকের মনে প্রশ্ন, প্রথম ইনিংসে ৫৯৫ রান তুলেও কোনো দল হেরেছে? উত্তরটা হলো—না। টেস্ট ইতিহাসে প্রথম ইনিংসে এখন পর্যন্ত ৭৬ বার প্রথম ইনিংসে ৫৯৫ কিংবা এর বেশি রান উঠেছে। কোনোবারই সেই দলগুলো হারেনি। ৩৭ বার ম্যাচ ড্র হয়েছে। ৩৮ বার দল জিতেছে। আর একটা ম্যাচের ফল বোঝা যাবে আগামীকাল। ওয়েলিংটন টেস্টের শেষ দিনে। ১২২ রানে এগিয়ে থেকে শেষ দিনে ব্যাটিং করতে নামবে বাংলাদেশ।

ইমরুল ব্যাটিং করতে পারবেন কি না, এখনো নিশ্চিত নয়। এর সঙ্গে মুশফিকও না থাকলে এক অর্থে বাংলাদেশের তো ৫ উইকেট নেই! কাল সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই অবশ্য বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মুশফিক ব্যাটিং করবেন। আর ইমরুলের চোটের কী অবস্থা, তা জানা যাবে আরও পরে।

আগামীকাল সকালের সেশনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দলে একের পর এক এমন চোটের হানা, শেষ বিকেলে এলোমেলো হয়ে যাওয়া—এর একটা নেতিবাচক ছাপ তো ড্রেসিং রুমে পড়েই। তবে কাল বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা তাসকিন আহমেদ জানালেন, সব মানসিক চাপ সামলে দল প্রস্তুত। সকালের সেশনটা ভালোমতোই পার করে দেবে বাংলাদেশ।

তাসকিন মনে করেন উইকেট এখনো ব্যাটিংয়ের জন্য দারুণ উপযোগী। পঞ্চম দিনেও উইকেট ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা নেবে না। কিছু কিছু জায়গায় ‘ফুটমার্ক’ আছে। কিন্তু উইকেট ভাঙেনি। ব্যাটসম্যানদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। ১২২ রানের লিডের আকার এখন কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় সেটিই দেখার। বাংলাদেশের তিন উইকেটের একটি নাইটওয়াচম্যান হিসেবে নামা মেহেদী মিরাজের। মুমিনুল অপরাজিত আছেনই। প্রথম ইনিংসের দুই সেঞ্চুরিয়ান সাকিব ও মুশফিকের পর নামবেন ফিফটি করা সাব্বিরও।

অনায়াসে আরও ১০০ রানের ​মতো যোগ হওয়ারই কথা। আর আশার কথা হলো, নিউজিল্যান্ডে চতুর্থ ইনিংসে ২০০ কিংবা এর বেশি তাড়া করে জেতার মাত্র ১২টি নজির আছে। এর মধ্যে নিউজিল্যান্ড জিতেছে মাত্র ৫ বার। ফলে ২২০-৩০ রানের লক্ষ্যকেও নিরাপদ ভাবতে পারে বাংলাদেশ। কিন্তু ভয়ের কথা হলো, বৃষ্টির ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পঞ্চম দিনেরও ​দৈর্ঘ্য য​দি বাড়ানো হয়, আর ব্যাটিং করার জন্য ৭০ ওভারের মতো পায় নিউজিল্যান্ড; উইকেটের চেহারা হয়তো জয়ের চ্যালেঞ্জটা নিতে উৎ​সাহিত করবে তাদের।

সবকিছুই এখন নির্ভর করছে কালকের সকালের ওপর!

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s