চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত মিরাজ

image-5425

অক্টোবরে দেশের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে মেহেদী হাসান মিরাজ উইকেট পেলেন কত অনায়াসে। জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সেটিই হয়ে গেছে সোনার হরিণ। ইংলিশদের সঙ্গে দুই টেস্টে পেলেন ১৯ উইকেট, কিউইদের বিপক্ষে সমান ম্যাচে উইকেট মাত্র ৪টি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কতটা কঠিন, গত কয়েক মাসে উপলব্ধিটা নিশ্চয়ই হয়েছে মিরাজের।

হায়দরাবাদে ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ১৬ ওভারে ৯২ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থেকে মিরাজ আরও বুঝেছেন, কোহলিরা আরও বড় পরীক্ষা নেবেন তাঁদের। প্রস্তুতি ম্যাচে বোলিং ভালো না হলেও এখান থেকে অনেক কিছুই শিখেছেন মিরাজ, ‘প্রস্তুতি ম্যাচ থেকে আমরা কন্ডিশন সম্পর্কে ধারণা পেয়েছি। মানসিকভাবে আমাদের সেভাবেই তৈরি হতে হবে। সর্বশেষ আমরা নিউজিল্যান্ডে খেলেছি। ওরা (কিউইরা) একভাবে খেলে, ভারত আরেকভাবে খেলবে। ওরা চাইবে বোলারদের ওপর দাপট দেখাতে। প্রস্তুতি ম্যাচে আমরা এটা বুঝতে পেরেছি যে, ওরা সব সময় রান করতে চায়। আমরাও চেষ্টা করব ওদের আটকাতে। প্রস্তুতি ম্যাচটা আমাদের অনেক কাজে দেবে।’

কাল থেকে শুরু হায়দরাবাদ টেস্টে কোহলি-রাহানে-পূজারাদের নিয়ে গড়া ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপকে আটকাতে বাংলাদেশের বোলাররা ছক কষছেন অনেকভাবে। তবে মিরাজ মনে করেন, ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের আউট করতে হলে তাঁদের রানের চাকাটা আগে আটকাতে হবে, ‘সব সময়ই ভালো জায়গায় বোলিং করতে হবে, ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে। ওরা সব সময়ই রান করতে চাইবে। আমাদের বোলারদের রান আটকাতে হবে। সেটি রাখতে পারলে ওরা ভুল করে আউট হবে। জোর করে কিছু করা যাবে না। সেটি করে ওদের সঙ্গে পারাও যাবে না।’

ইংলিশদের সঙ্গে অভিষেক সিরিজেই সপ্তম-স্বর্গে ওঠা মিরাজ পরেরটিতেই হয়েছেন কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি। যদিও নিউজিল্যান্ডের মতো পেস-সহায়ক কন্ডিশনে স্পিনারদের সাফল্য পাওয়া কঠিনই। এখন হায়দরাবাদে আবার কিছুটা চেনা কন্ডিশনে মিরাজ ফিরে পাবেন নিজেকে? ১৯ বছর বয়সী এই অফ স্পিনার বললেন, ‘সব সময় একইভাবে খেলা যায় না। তবে চেষ্টা করি ভালো করতে। হ্যাঁ, এখানে স্পিনাররা হয়তো সাহায্য পাবে। তবে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা স্পিনে অনেক ভালো। আমাদের জন্য এই টেস্টটা বড় চ্যালেঞ্জের। আমরা সেভাবেই মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়েছি।’

কামরুল ইসলাম-শুভাশিস রায়েরা ভারতে যাওয়ার আগে জানিয়েছেন, একাদশে সুযোগ পেলে বিরাট কোহলির উইকেট নিতে চান। মিরাজের অবশ্য তেমন কোনো লক্ষ্য নেই, ‘ভারতীয় দলে সব ব্যাটসম্যানই বিশ্বমানের। চেষ্টা থাকবে ভালো বোলিং করার। নির্দিষ্ট কোনো ব্যাটসম্যানকে নিয়ে লক্ষ্য নেই। আমাদের ১০ উইকেটই নিতে হবে। তবে চেষ্টা থাকবে নিচের চেয়ে ওপরের দিকের উইকেটগুলো নেওয়ার।’

অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে যাঁকে দেখা গেছে দুর্দান্ত অলরাউন্ডার হিসেবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেই মিরাজ যেন শুধুই একজন বোলার। বোলিং নিয়ে প্রশ্ন না থাকলেও ব্যাটসম্যান মিরাজকে তাই খুঁজছেন সবাই। তিনি নিজেও চান ভারতের বিপক্ষে ব্যাট হাতে দারুণ কিছু করতে, ‘ব্যাটিংটা ভালো হচ্ছে না। তবে বিশ্বাস করি ভালো করতে পারব। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অনেক কঠিন। তারপরও চেষ্টা করছি যতটা দ্রুত সম্ভব মানিয়ে নিতে। আশা করি, ব্যাটিংয়ে দ্রুত ছন্দ ফিরে পাব।’

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s