লঙ্কায় তিন তরুণের লক্ষ্য

1453876531_mustafizur-rahman.jpg

মোস্তাফিজুর রহমান

দেশের মতো খেলার চেষ্টা করব’

বিদেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলতে গেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। নিশ্চয়ই ভীষণ রোমাঞ্চিত! কাল বিমানবন্দরে যাওয়ার আগে প্রশ্নটা করা হলো তাঁকে। মোস্তাফিজের উত্তর, ‘আমার ব্যাগ কই? ব্যাগ খুঁজে পাচ্ছি না!’ গাড়িতে ওঠার আগে হ্যান্ড লাগেজ খুঁজে পাচ্ছিলেন না মোস্তাফিজ। সেটা নিয়ে কয়েক সেকেন্ডের যে টেনশন তাঁর মধ্যে দেখা গেল, বিদেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলা নিয়ে তার ছিটেফোঁটাও নেই, ‘কী বলব বলেন? আগে তো বিদেশে কখনো টেস্ট খেলিনি, কীভাবে বলব! এটুকু বলতে পারি, সুযোগ পেলে ইনশা আল্লাহ দেশের মতো খেলার চেষ্টা করব।’
ভান্ডারে দুটি মাত্র টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা। গত বছরের জুলাইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম ও ঢাকায় অভিষেক টেস্ট সিরিজের পর এখন পর্যন্ত মোস্তাফিজ-জাদু দেখা গেছে শুধু ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টিতেই। চোটের কারণে খেলা হয়নি মাঝের ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচগুলোর কোনোটাই। শ্রীলঙ্কা সিরিজই আবার তাঁকে লাল বলে কাটার মারার সুযোগ করে দিচ্ছে।

soumya-sarkar

সৌম্য সরকার

‘নিজেকে মেলে ধরতে চাই’

পাঁচ টেস্টের প্রথম তিনটিতে ব্যাট করেছেন সাত আর ছয়ে। সর্বশেষ দুটিতে হয়েছেন তামিম ইকবালের ওপেনিং সঙ্গী। কিন্তু সৌম্য সরকারও জানেন, এ জায়গাটা এখনো পাকা হয়নি তাঁর জন্য। ইমরুল কায়েস ফিট হলেই আবার তিনি হয়ে যাবেন তিন নম্বর ওপেনার, অথবা ব্যাট করবেন অন্য কোথাও।
তাঁর ব্যাটিং পজিশন নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্টের দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাটাতেই যেন এবার শ্রীলঙ্কা গেলেন সৌম্য। কাল যাওয়ার আগে বলছিলেন, ‘ওপেনার হয়ে খেলতে আমি বেশি স্বচ্ছন্দ বোধ করি। মনে হয় যেন নিজের জায়গা। ওপেনিংয়ে নামলে চেষ্টা করি নিজের মতো খেলতে, যতটুকু সম্ভব নিজেকে মেলে ধরতে। আমি ভালো খেললে অন্য কে এল না এল, তা নিয়ে চিন্তার কিছু থাকবে না। কাজেই চেষ্টা করব যেখানে সুযোগ পাই, এমনভাবে খেলতে যেন নিজেকে নিয়ে আর চিন্তা করা না লাগে।’

শ্রীলঙ্কায় এটি সৌম্যের দ্বিতীয় সফর। এর আগে গেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে। সেই সফর আর এই সফরে অনেক পার্থক্য। সৌম্য অবশ্য আশাবাদী, ‘কিছুদিন আগে যাচ্ছি যেহেতু, যতটুকু সম্ভব ওখানকার আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে চেষ্টা করব। ভালো কিছু করতে হলে আগে ওখানকার কন্ডিশনে অভ্যস্ত হতে হবে।’

Mehedi+Hasan+Miraz.jpg

মেহেদী হাসান মিরাজ

‘মুরালির সঙ্গে দেখা করতে চাই’

ভারতে এক টেস্ট খেলতে গিয়ে মুখোমুখি বসেছিলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। মেহেদী হাসান মিরাজের এবারের লক্ষ্য মুত্তিয়া মুরালিধরন। অফ স্পিনের টোটকা শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তির কাছেও চাইবেন বাংলাদেশের এই তরুণ, ‘এবার আমি মুরালিধরনের সঙ্গে দেখা করতে চাই। অনেক অভিজ্ঞ তিনি। তাঁর সঙ্গে কথা বললে, তিনি তাঁর অভিজ্ঞতার কথা আমাকে বললে আমি অনেক কিছু শিখতে পারব। সেগুলো পরে কাজে লাগাতে চেষ্টা করব।’
মিরাজ এর আগেও একবার শ্রীলঙ্কা গেছেন। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে সে সফরের অভিজ্ঞতা থেকে বললেন, ‘ওখানকার কন্ডিশন আমার বোলিংয়ের জন্য বেশ ভালো। আশা করি, ভালো কিছু করতে পারব।’ মুত্তিয়া মুরালিধরন যেকোনো অফ স্পিনারের জন্যই বিরাট এক উৎসাহের নাম। শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনে তো সেটা আরও বেশি!
ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী কীভাবে বোলিংটাকে বদলে ফেলতে হয়, হায়দরাবাদে অশ্বিনের কাছ থেকে সেই টিপসই পেয়েছিলেন মিরাজ। টেস্ট ক্রিকেটে ৮০০ উইকেটের মালিক মুরালিধরনের কাছে কী জানতে চাইবেন তিনি?

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s