টেস্ট নিয়ে আবারও অস্ট্রেলিয়ার টালবাহানা

দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়া দল বাংলাদেশে আসবে আগামী ১৮ আগস্ট। ২২-২৪ আগস্ট তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টেস্ট শুরু ২৭ আগস্ট থেকে। ঈদুল আজহার বিরতির পর মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ৬ সেপ্টেম্বর।

না, অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফরসূচি চূড়ান্ত হয়ে যায়নি। তবে বিসিবি থেকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছে পাঠানো প্রস্তাবিত সূচিটা এ রকমই। কিন্তু এই সূচি মানা তো পরের কথা, বাংলাদেশের পাওনা দুই টেস্টের সিরিজটাকে অস্ট্রেলিয়া আবারও ঝুলিয়ে দেয় কি না, সেটাই এখন প্রশ্ন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, আগের দুবারের মতো এবারও বাংলাদেশে টেস্ট খেলতে চাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া। তাদের আগ্রহ ওয়ানডেতে।

কারণটাও পরিষ্কার। পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আগামী ২৩ অক্টোবর পাঁচ ওয়ানডে ও এক টি-টোয়েন্টির সিরিজ খেলতে ভারতে আসবে অস্ট্রেলিয়া দল। তার আগে বাংলাদেশ থেকে ওয়ানডের ‘ওয়ার্মআপ’টা সেরে যেতে চাচ্ছে তারা। সেটাও নিজেদের পছন্দসই সময়ে। বিসিবির প্রস্তাবিত সময় অনুযায়ী বাংলাদেশে এলে অস্ট্রেলিয়ার সফর শেষ হয়ে যাবে ১০ সেপ্টেম্বর। তাদের তখন দেশে ফিরে গিয়ে আবার ভারতে আসতে হবে ২৩ সেপ্টেম্বর। দুবার বিমানভ্রমণের ঝক্কি এড়াতেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া চাচ্ছে ভারত সফরের সঙ্গে মিলিয়ে বাংলাদেশ সফরটা করতে। আর ভারতে যেহেতু তখন শুধুই ওয়ানডে খেলবে, বাংলাদেশেও সেটাই খেলার আগ্রহ তাদের।

টেস্টের পরিবর্তে ওয়ানডে খেলার প্রস্তাব ক্রিকেট অস্টেলিয়া এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে না দিলেও আকারে-ইঙ্গিতে তাদের ইচ্ছার কথা জানিয়েছে বিসিবিকে। বিসিবিও এখন পর্যন্ত আকারে-ইঙ্গিতে নেতিবাচক মনোভাবই দেখাচ্ছে। প্রতিশ্রুত টেস্ট সিরিজটি বাদ দিয়ে অন্য কিছু খেলতে রাজি নয় বাংলাদেশ। বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরীর কথায়ও সে আভাস, ‘প্রতিশ্রুত এফটিপি (ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনা) অনুযায়ী আগস্ট-সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশে দুটি টেস্ট খেলতে আসার কথা। এর বাইরে অন্য কিছু ভাবার অবকাশ নেই। অন্য কিছু হওয়ার সম্ভাবনাও খুবই কম।’

২০১১-এর এপ্রিলে বাংলাদেশে তিনটি ওয়ানডে খেলে গেলেও সিরিজের টেস্ট দুটি পরে কোনো একসময় খেলতে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া দলের। দুই বোর্ডের আলোচনায় ঠিক হয়েছিল, দুই টেস্টের সিরিজটি হবে ২০১৫-এর অক্টোবরে। কিন্তু নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশে আসার ঠিক আগের দিন সিরিজ স্থগিত করে দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। আগামী আগস্ট-সেপ্টেম্বরে সেই বকেয়া সিরিজটিই হওয়ার কথা।

ওদিকে জুলাইয়ের বাংলাদেশ সফর নিয়ে পিসিবিও মৃদু টালবাহানা শুরু করেছে। এ সফরের বিনিময়ে বাংলাদেশ দলও পাকিস্তানে গিয়ে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে আসুক, এমনই আবদার তাদের। নিজাম উদ্দিন চৌধুরী নাকচ করে দিয়েছেন সে সম্ভাবনাও, ‘এ নিয়ে দুই বোর্ডের মধ্যে আনুষ্ঠানিক কোনো আলোচনা নেই। এফটিপি অনুযায়ী পাকিস্তান বাংলাদেশে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে আসবে, এটাই আমরা জানি।

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s