ব্যাটসম্যানদের মানসিকতায় হতাস অধিনায়ক

কেউ কেউ থিতুই হতে পারলেন না। যারা থিতু হলেন তারা নিজেদের ইনিংস খুব একটা বড় করতে পারলেন না। দুই ইনিংসেই লঙ্কানদের একজন করে ব্যাটসম্যান শতক পেলেন। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের পাওয়া চার অর্ধশতক।

গল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার প্রথম টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিনে ১৯৭ রানে গুটিয়ে গিয়ে ২৫৯ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা মুশফিক ব্যাটিং নিয়ে নিজের হতাশার কথা জানালেন।

“মানসিক অবস্থা ঠিকঠাক না থাকলে একটা বলেই ব্যাটসম্যান আউট হয়ে যেতে পারে। …. দ্বিতীয় ইনিংসেও ওদের উপুল থারাঙ্গা যে ব্যাটিং করেছে, দেখে মনেই হয়নি তার খেলতে কোনো সমস্যা হয়েছে। অধিনায়ক হিসেবে বলবো, আমাদের ব্যাটসম্যানদের মানসকিতা আমাকে হতাশ করেছে।”

চতুর্থ দিন শেষ বেলায় দারুণ দৃঢ়তা দেখিয়েছিলেন সৌম্য সরকার-তামিম ইকবাল। ১০ উইকেট অক্ষত রেখে শেষ দিনে যাওয়ায় ম্যাচ বাঁচানোর আশা ছিল বাংলাদেশ দলের। সকালে এক ঘণ্টায় ৫ উইকেট হারিয়েই সব শেষ।

“আমাদের খুব ভালো আশা ছিলো। সৌম্য-তামিম দারুণ জুটি গড়েছে। আমরা ভেবেছি, প্রথম সেশনটাও যদি আমরা কম উইকেট হারাই, তাহলে ধীরে ধীরে আমরা ড্রয়ের দিকেই এগিয়ে যেতে পারব। সেটা আমরা পরিনি। এটা আমাদের জন্য বড় একটা ব্যর্থতা। আমাদের একটা সুযোগ হাতছাড়া হলো।”

মুশফিকের ভাষায় গলের পঞ্চম দিনের ব্যাটিং গত কিছু দিনে তাদের সবচেয়ে বাজে। তবে এই ব্যাটিংকে ব্যতিক্রম হিসেবে দেখে সামনে চোখ রাখছেন অধিনায়ক।

“আজকের মতো খারাপ কিন্তু গত দুই সিরিজের কোনোটাতেই হয়নি। প্রথম ইনিংসে কিন্তু আমরা খারাপ খেলেও ৩১২ করেছি। দ্বিতীয় ইনিংস নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়ার কিছু নাই। খুব দ্রুত আমাদের এ অবস্থা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।”

“গত দুটি সিরিজেও আমাদের ড্র বা জয়ের সুযোগ এসেছিলো। আজকেও ১০ উইকেটে ৯৮ ওভার ব্যাটিংয়ের চ্যালেঞ্জ ছিলো। এই সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে। দক্ষতা থাকা এক কথা, কাজটা করা আরেক কথা। এখানটায় আমাদের উন্নতি করতে হবে।”

প্রথম ইনিংসে লেগ স্টাম্পের বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে আউট হন সাকিব আল হাসান। দ্বিতীয় ইনিংসে অনেকটা একইভাবে ফিরেন মুশফিক নিজে। টেস্টে এই ধরনের শট খেলা কী খুব দরকার?

“ভালো বল বা স্টাম্পের বলে শট করতে গেলে আউট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আমি বিশ্বাস করি, বাইরের বল খেলে রান করতে হবে।”

“প্রথম ইনিংসে সাকিবের আউট দুর্ভাগ্যজনক। আজকে আমার আউট নিয়েও তাই বলবো। আমার ক্ষেত্রে লেগ স্লিপ ছিল না, শর্ট ফাইন লেগ ছিল না। আমি যদি এই বলে রান না করি, কোন বলে করব। এটা বলতে পারেন, আমরা যেভাবে শটটা খেলা দরকার সেভাবে পারিনি। ব্যাটের যেখানে শটটা লাগার দরকার, সেখানে লাগেনি।”

অধিনায়কের শেষ কথাটা আশা জাগানিয়া, “আমরা চেষ্টা করবো সামনে এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতে।”

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s